• রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

আন্তর্জাতিক চাপেই রায়হানের মুক্তি : ডব্লিউবিও

অভিবাসী নিপীড়ন নিয়ে আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেওয়ার পর মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার রায়হান করিবের মুক্তি আন্তর্জাতিক চাপেই হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে প্যারিস ভিত্তিক সংগঠন ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউবিও)। আজ শনিবার ডব্লিউবিও‘র প্রেসিডেন্ট কাজী এনায়েত উল্লাহ এ মন্তব্য করেন।

এনায়েত উল্লাহ বলেন, ‘আমি খুবই আনন্দিত, রায়হান মুক্ত হয়েছেন। আন্তর্জাতিক চাপের কারণেই রায়হানকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছে মালয়েশিয়া সরকার।’

ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউবিও) প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘শুধু রায়হান কবীর নয়, প্রবাসীদের যেকোনো সমস্যায় সব সময় পাশে থাকবে ডব্লিউবিও। যদি মালয়েশিয়া সরকার আমাদের আবেদনের সাড়া না দিতেন, তাহলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন লঙ্ঘনের দায়ে মালেশিয়া সরকারের বিরুদ্ধে ইউরোপীয়ান আন্তর্জাতিক আদালতে অভিযোগ করা প্রস্তুতি ছিল আমাদের।’

রায়হান কবীরের মুক্তির দাবি বরে অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনও (আয়েবা)। ডব্লিউবিও এবং আয়েবা রায়হানের গ্রেপ্তারের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংস্থা (আইএলও), আন্তর্জাতিক মাইগ্রেশন সংস্থা (আইওএম), ইউরোপিয় ইউনিয়ন হেড কোয়ার্টার এবং প্যারিসে মালেয়শিয়া দূতাবাসে চিঠি দেয়। এছাড়া ফ্রান্সের বিখ্যাত মানবাধিকার আইনজীবী ফিলিপ সিমনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি টিম গঠন করে। গত ২৮ জুলাই রায়হান কবীরের পক্ষে আইনি সহায়তার অনুমতি চেয়ে মালয়েশিয়া সরকারের নিকট আবেদন করে গঠিত আইনজীবী দল। তার পরিপ্রেক্ষিতে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের দেশে বিদেশি আইনজীবীর কার্যক্রম করার আইন নেই। তাই আইজীবীসহ তিন সদস্যের প্রতিনিধিদলকে অনুমতি দিতে অস্বীকৃতি জানায়। অবশ্য তারা আশ্বস্ত করেন, অচিরেই রায়হানকে মুক্ত করে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাবেন।

গতকাল শুক্রবার রাতে দেশে ফেরেন রায়হান। শুক্রবার দিবাগত রাত ১টায় মালয়েশিয়ান এয়ারলাইনসের এমএইচ-১৯৬ ফ্লাইটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তিনি। এ সময় তাকে নিতে আসেন তার বাবা শাহ আলম। তিনি বলেন, ‘আমরা অপেক্ষায় ছিলাম কবে আমাদের রায়হান আমাদের কাছে আসবে। আজ রায়হান এসেছে। আমরা ঈদের চাঁদ হাতে পেয়েছি। এই আনন্দ বুঝিয়ে বলতে পারব না।’

কেমন লাগছে-জানতে চাইলে রায়হান কবির বলেন, ‘এই আনন্দ বলে বোঝাতে পারব না। গত ছয় বছরে কতবার যাওয়া-আসা করেছি। এবার অন্যরকম অনুভূতি। আমার বাংলাদেশ। আমার মাটি। আমার বাবা-মা। এই আনন্দ কাউকে বলে বোঝাতে পারব না। আপনাদের সবার কাছে কৃতজ্ঞতা। দেশে-বিদেশে-প্রবাসে যারা পাশে ছিলেন, সবার কাছে কৃতজ্ঞতা।’

Leave a Reply

More News from আন্তর্জাতিক

Developed by: TechLoge

x