• শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০

‘আজ হোক বা কাল লুকাশেঙ্কোকে ক্ষমতা ছাড়তেই হবে’

প্রেসিডেন্ট অ্যালেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কোকে আর বেলারুশের মানুষ মেনে নেবেনা বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির বিরোধী নেতা সেভেতলানা টিখানোভোস্কায়া। বর্তমানে তিনি প্রতিবেশি রাষ্ট্র লিথুনিয়ায় নির্বাসনে রয়েছেন। সেখানেই কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, বেলারুশের মানুষ পরিবর্তন হয়েছে। তাই লুকাশেঙ্কোকে অবিলম্বে ক্ষমতা ছেড়ে দিতে হবে এবং এটাই সবার জন্য ভাল।
বেলারুশের বর্তমান প্রেসিডেন্ট অ্যালেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো প্রায় ৮০ ভাগ ভোট পেয়ে নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। তবে এ নির্বাচনকে ঘিরে রয়েছে নানা বিতর্ক। এর জেরে নির্বাচন বাতিলের দাবিতে দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে বড় ধরনের আন্দোলন দেখা গেছে। আন্দোলন থামাতে প্রথম দিকে গণগ্রেপ্তার শুরু করে দেশটির পুলিশ।

এক পর্যায়ে দেশটির নারীরাও যোগ দেন আন্দোলনে। এ নিয়ে ৩৭ বছর বয়সী টিখানোভোস্কায়া বলেন, আজকে হোক আর কালকে হোক লুকাশেঙ্কাকে পদত্যাগ করতেই হবে। এটাই সবার জন্য ভাল হবে। যদি তিনি শীঘ্রই ক্ষমতা ছাড়েন তাহলে দেশের জন্য সেটা ইতিবাচক বিষয় হবে।
সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ বেলারুশে একটানা ৬ বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন লুকাশেঙ্কো। তবে তার সাম্প্রতিক নির্বাচন নিয়ে উঠেছে কারচুপির অভিযোগ। বিরোধীরা বলছেন, ৯ আগস্টের ওই নির্বাচন ছিল কারচুপি ও অনিয়মে ভরপুর। তাই অবিলম্বে আবারো নির্বাচন দিতে হবে বেলারুশে। এখন পর্যন্ত আন্দোলনে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া আন্দোলনকারীদের ওপর কারাগারে নির্যাতনের অভিযোগও উঠেছে লুকাশেঙ্কোর সরকারের বিরুদ্ধে।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x