• শনিবার, মার্চ ২৮, ২০২০

বকেয়া ট্যাক্স আদায়ে টাওয়ার হ্যামলেটস ও এইচএমআরসি যৌথ প্রচেষ্টা

Posted on by

ইউকেবিডি টাইমস ডেস্কঃ 

যারা কাউন্সিল ট্যাক্স পরিশোধ করেন না বা ফাঁকি দেন, তাদের ধরতে ঋণ সংক্রান্ত তথ্য-বিনিময় করার ক্ষমতা প্রয়োগ করতে সরকারের রাজস্ব ও শুল্ক (এইচএমআরসি বা হার ম্যাজেস্টিম্বস রেভেন্যূ এন্ড কাষ্টমস) বিভাগের একটি পরীক্ষামূলক প্রকল্প টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল সহ লন্ডনের ২৯টি স্থানীয় কর্তৃপক্ষে চালু করা হয়েছে। 

কাউন্সিল এবং এইচএমআরসি এর এই যৌথ প্রচেষ্টার ফলে বারার সর্বাধিক আয়কারী বাসিন্দাদের মধ্যে যারা কাউন্সিল ট্যাক্স পরিশোধ করছেন না, তাদের চিহ্নিত করতে কাউন্সিল সক্ষম হবে।

এ প্রসঙ্গে মেয়র অব টাওয়ার হ্যামলেটস, মি: জন বিগস বলেন, এইচএমআরসি এর সাথে অংশিদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করার মাধ্যমে আমরা এটাই নিশ্চিত করতে চাই যে, জনগণ যখন কর পরিশোধ করার সামর্থ্য অর্জন করবে, তখন যেন তা পরিশোধ করেন। কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক বাজেট কর্তনের এই সময়ে প্রতিটি পেনি বা পয়সাই গুরুত্বপূর্ণ এবং কাউন্সিল ট্যাক্স পেমেন্ট ময়লার বিন নিয়মিত সংগ্রহ, সোশ্যাল কেয়ার সার্ভিস অব্যাহত রাখা ও লাইব্রেরীগুলোর দরোজা খোলা রাখার মত জনগুরুত্বপূর্ন সেবাখাতগুলো নিশ্চিত করে থাকে।

ট্রায়াল বা পরীক্ষামূলক এই কার্যক্রম চলাকালে কাউন্সিল ট্যাক্স প্রদানকারীদের মধ্যে যারা চাকুরি করছেন অথবা আয় রয়েছে, অথচ কর দিচ্ছেন না, তাদেরকে বকেয়া পরিশোধ শুরু করতে তাদের সাথে যোগাযোগ করা হবে। যদি তারা পেমেন্ট দিতে ব্যর্থ হন, তাহলে তাদের চাকুরিদাতার মাধ্যমে তাদের আয় থেকে কাউন্সিল ট্যাক্সের বকেয়া আদায় করা হবে।

প্রায় ৪ হাজার কাউন্সিল ট্যাক্স খেলাপির চাকুরী এবং সেল্ফ-এসেসমেন্ট বা স্ব-মূল্যায়ন তথ্য পেতে তাদের নমুনা তালিকা এইচএমআরসি এর কাছে পাঠানো হয়েছে। এই তথ্য যাচাইয়ের পর কাউন্সিল তাদের বকেয়া কর আদায়ে অথবা খেলাপকারীরা যাতে কর পরিশোধ করতে সক্ষম হন, সেজন্য তাদেরকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে তাদের সাথে যোগাযোগ করা হবে।

বকেয়া করসমূহ আদায় করার ন্যায়সঙ্গত উদ্যোগের অংশ হিসেবে যেসকল বাসিন্দা আর্থিকভাবে সংকটের মুখোমুখি রয়েছেন, কাউন্সিল অফিসাররা তাদেরকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রদান করবেন। যে কোন ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাসিন্দারা যাতে সঠিক ও কার্যকর সহযোগিতা পান, সেজন্য তাদেরকে সংশ্লিষ্ট সাহায্য প্রদানকারী সংগঠনসমূহের সাথে যোগাযোগ করতে উদ্বুদ্ধ করা হবে।

উল্লেখ্য, যাদের দরকার, তাদেরকে ১০০ শতাংশ কাউন্সিল ট্যাক্স হ্রাস বা মওকুফের স্কীম চালু রেখেছে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল।

কেবিনেট মেম্বার ফর রিসোর্সেস এন্ড দ্যা ভলান্টারি সেক্টর, কাউন্সিলর ক্যানডিডা রোনাল্ড বলেন, কতিপয় মানুষ তাদের কাউন্সিল ট্যাক্স প্রদান না করার ফলে আমাদের ফ্রন্টলাইন সার্ভিসের ওপর মানুষ নির্ভরশীল বাসিন্দাদের ভুগতে হচ্ছে। নতুন এই পাইলট কার্যক্রমের ফলে কাউন্সিল ট্যাক্স ফাঁকি দেয়ার কিংবা পরিশোধ না করার প্রবণতা যাদের, তাদের চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আমরা সক্ষম হবো এবং যে অর্থ আদায় হবে, তা দিয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সার্ভিসগুলো ভালোভাবে পরিচালনা করা যাবে।

Leave a Reply

More News from uk

More News

Developed by: TechLoge

x