• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯

স্টেপনীর ফিন্যান্সিয়াল হেলথ সেন্টার এক বছরে ২ হাজারের মতো বাসিন্দাকে সহযোগিতা করেছে

Posted on by

ইউকেবিডি টাইমস ডেস্ক:

টাওয়ার হ্যামলেটস হোমস কর্তৃক পরিচালিত ফিন্যান্সিয়াল হেলথ সেন্টার (এফএইচসি) গত এক বছরে দুই হাজারেরও বেশি বাসিন্দাকে সহযোগিতা করেছে। পূর্ব লন্ডনের স্টেপনীতে অবস্থিত এই সেন্টারের প্রথম বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে ৩ অক্টোবর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই তথ্য জানানো হয়। বারার বাসিন্দাদের ব্যক্তিগত আর্থিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় সহযোগিতা করতে এই সেন্টার অনেকগুলো কমিউনিটি সংগঠনকে একত্রিত করেছে। একাউন্ট থ্রি, সিটিজেন এডভাইস ব্যুরো, গো-ট্রেইন, এলবিটিএইচ এবং লাইমহাউজ প্রজেক্টের মতো ১০টি সহযোগী সংস্থা বাসিন্দাদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। প্রথম বছরে ২ হাজারের বেশি বাসিন্দা এই সেন্টারের সেবা গ্রহণ করেছেন। এই এক বছরে মোট সাড়ে ৪ লাখ পাউন্ডের সমপরিমাণ ঋণ সংকোচিত করতে এবং মোট ১ দশমিক ৪ মিলিয়ন পাউন্ডের বেনিফিট আবেদন করতে সহযোগিতা করা হয়েছে। এফএইচসি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচিও প্রদান করে থাকে। প্রথম বছর ৫৪০ জন বাসিন্দা বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছেন এবং ১৭২ জনের নিশ্চিত কর্মসংস্থানে সহযোগিতা করা হয়েছে। টাওয়ার হ্যামলেটস হোমস (টিএইচএইচ) হচ্ছে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের আর্মস লেংথ ম্যানেজমেন্ট কোম্পানী, যারা কাউন্সিল মালিকানাধীন বাড়ি-ঘরের সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছে। টিএইচএইচ এর চীফ এক্সিকিউটিভ সুস্মিতা সেন বলেন, এফএইচসি এর কার্যক্রম শুরুর প্রথম এক বছরেই বিপুল সংখ্যক মানুষকে সাহায্য করার মধ্য দিয়ে এটাই প্রমাণিত হয় যে, আমরা যে সার্ভিসটি প্রদান করছি, তা কতটা গুরুত্বপূর্ণ। অংশিদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করলে, অর্থাৎ বারার অনেকগুলো সংগঠন একত্রিত হয়ে একই ছাদের নিচে একই ধরনের সার্ভিস প্রদান করলে কী ধরনের সাফল্য অর্জন করা সম্ভব, তা-ই ফুটে ওঠে এই উপাত্তে। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে আগামী বছর আরো বিপুল সংখ্যক মানুষকে আরো বেশি করে সহযোগিতা প্রদান করা। টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র, জন বিগস বলেন, আমি আনন্দিত যে, আমাদের প্রায় দুই হাজার বাসিন্দা এফএইচসি থেকে সহায়তা পেয়েছে। এর অর্থ হলো, লোকজন যে সকল বেনিফিট পাওয়ার উপযুক্ত, তা লাভ করায়, ঋণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ায় অথবা চাকুরি কিংবা প্রশিক্ষণ লাভের ক্ষেত্রে সহযোগিতা পাওয়ায় তাদের জীবন বদলে গেছে। আর্থিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় যদি কারো সহযোগিতার দরকার হয়, তাহলে এই সেন্টারে যাওয়ার জন্য আমি বাসিন্দাদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্চিছ।    

Leave a Reply

More News from uk

More News

Developed by: TechLoge

x