• রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯

সুইনডনে স্থায়ী শহীদ মিনার উদ্বোধন

Posted on by

সুইনডন থেকে-এম এ আউয়ালঃ

বাংলা ভাষার কোনো সূর্যাস্ত নেই। তাই বাংলা ভাষার আলোচিত কিরণ এখন সারা পৃথিবীতেই ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯৫২ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় যে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের নির্মাণের সূচনা হয়েছিল, তা ক্রমশ সারা পৃথিবী জুড়ে বিস্তার লাভ করেছে।বিশেষ করে জাতিসংঘ কর্তৃক বাংলাভাষা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি অর্জনের পর ভাষার ঐতিহ্যের প্রতীক এবং মানবাধিকারের অংশ হিসেবে গুরুত্ব বেড়েছে অনেক।  আজ ২৬-শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ সুইনডন বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন । আজকের এ দিনে এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সুইনডন শহরের প্রাণ কেন্দ্র নান্দনিক ফ্যারিংডন পার্কে স্হায়ীভাবে নির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন করা হয় ।যা শুধু মাত্র বাংলা ভাষারই নয়, পৃথিবীর বিলুপ্ত এবং বেঁচে থাকা সকল ভাষার গৌরবোজ্জ্বল প্রতীক। সুইনডন বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনার নির্মানে সহযোগিতার জন্য সুইনডনবাসী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা । আজকের অবিস্মরণীয় উদ্বোধনী অনুষ্টানে উপস্হিত থাকার জন্য সবাই কে অসংখ্য ধন্যবাদ ।।, তা ক্রমশ সারা পৃথিবী জুড়ে বিস্তার লাভ করেছে।বিশেষ করে জাতিসংঘ কর্তৃক বাংলাভাষা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি অর্জনের পর ভাষার ঐতিহ্যের প্রতীক এবং মানবাধিকারের অংশ হিসেবে গুরুত্ব বেড়েছে অনেক।  আজ ২৬-শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ সুইনডন বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন । আজকের এ দিনে এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সুইনডন শহরের প্রাণ কেন্দ্র নান্দনিক ফ্যারিংডন পার্কে স্হায়ীভাবে নির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন করা হয় ।যা শুধু মাত্র বাংলা ভাষারই নয়, পৃথিবীর বিলুপ্ত এবং বেঁচে থাকা সকল ভাষার গৌরবোজ্জ্বল প্রতীক। সুইনডন বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনার নির্মানে সহযোগিতার জন্য সুইনডনবাসী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা । আজকের এই স্মরণীয় উদ্বোধনী অনুষ্টানে উপস্হিত থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ ।।

Leave a Reply

More News from কমিউনিটি

More News

Developed by: TechLoge

x