• শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

খুলনা বিভাগ বাসির বাৎসরিক পিকনিক: প্রাণের টানে ভালোবাসার বন্ধন এর একটি দিন

খুলনা বিভাগ বাসির বাৎসরিক পিকনিক: প্রাণের টানে ভালোবাসার বন্ধন এর একটি দিন

ডলার বিস্বাস : ৪ আগস্ট সকাল আট্টা ত্রিশ মিনিট পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে বিভিন্ন জায়গায় মানুষের জটলা একটু এগিয়ে যেতেই দেখতে পেলাম একে অপরের বুকে টেনে নিচ্ছে আবার কেউ কেউ হাতের উপর হাত রেখে কুশলাদি বিনিময় করছে এরা সবাই খুলনা বিভাগ বাসি ।বাৎসরিক পিকনিক ২০১৯।গন্তব্য ওয়ালটন অন দ্যা নাজ বীচ ।আগ্রহ আরো বেড়ে গেল কান পেতে তাদের গল্প শোনার চেষ্টা করলাম এরা অনেকেই প্রাইমারি স্কুল মাধ্যমিক স্কুল অথবা কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধু কেউ আবার লন্ডনে দশ বছর আগের পরিচিত ।গল্প শুনতে শুনতে প্রায় সকাল নয় টা ।এবার বাসে ওঠার পালা ,বাসে উঠে সিটে চেপে বসার আধাঘন্টার মধ্যে যাত্রা আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী সকালের নাস্তা বিতরণের পালা ।নাস্তা শেষে ঘোষণা এলো নিজেদের মধ্যে গান গাওয়ার প্রতিযোগিতা ।গানের কলির শেষে বর্ণমালা দিয়ে আবার গান শুরু করা এভাবে চলতে চলতে আমরা চলে এলাম আমাদের গন্তব্যে ।পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বাস থেকে নামার পর দেখতে পেলাম দুপুরের খাবার গরম করার আয়োজন অন্য প্রান্তে বাচ্চাদের দৌড় প্রতিযোগিতা আবার কেউবা ঘুডি উড়াতে ব্যস্ত ,এবার খাবারের আয়োজন দুপুরের খাবারের সাদা ভাত ,গরুর মাংস ,মুরগির রোস্ট ,ডাল ,লেবু ,কাঁচামরিচ ,শসা,সালাত ডেজাল্ট হিসাবে পায়েস ।দুপুরের খাবার শেষে শুরু হলো পুরুষদের বেলুন ফুটানো ,মহিলাদের পিলো পাস ,প্রতিযোগিতা অন্যদিকে চলছে ফুটবল আর ক্রিকেট ।প্রতিযোগিতা শেষে ঘোষণা এলো নিজেদের মতো করে ঘুরতে যাওয়া ঘোরাঘুরি শেষে সবাই চারটা ত্রিশ মিনিটে নির্ধারিত স্থানে মিলিত হওয়া ।লোনা পানির সমুদ্রের ঢেউয়ে যখন ক্লান্ত হয়ে নির্ধারিত স্থানে ফিরে দেখি তরমুজ,ড্রাই কেক, লাল চা, নিজেকে সতেজ করার পালা ,বিকালের নাস্তা শেষে করে চেপে বসলাম বাসে বাড়ি ফেরার পালা ।একটু পরে ঘোষণা এলো খেলাধুলার বিজয়ী দের মাঝে পুরষ্কার বিতরনের ,আঠারো বছর বয়স পর্যন্ত সকল বাচ্চাদের পুরষ্কার রাখা হয়েছিল ।বিতরণ শেষে রাফেল ড্র তারপর ঝাল মুড়ি খেতে খেতে বাড়ি ফেরা ।গাড়িতে বসে কয়েকজনের সাথে কথা বলার সুযোগ হলো তারা বলল এত সুন্দর গোছানো আয়োজন সবার দৃষ্টি কেড়েছে আয়োজক কমিটি কে ধন্যবাদ।প্রতি বছর এমন আয়োজন হবে এটা আমাদের সবার দাবি ।পিকনিক কমিটির আহবাহক ছিলেন মোহাম্মদ মোহিববুল্লাহ, সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন মোঃ ডলার বিশ্বাস,ব্যারিস্টার সৈয়দ ইমরুল হাসান, নাজমুল সাকিব,অনন্য দায়িত্বে ছিলেন ওসমান গনি , গোলাম হাফিজ ,ইসমাইল , রায়হান ,শহিদুল ইসলাম , মুহিব , কাজী রুহু সহ আরো অনেকে ।

Leave a Reply

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x