• শনিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৯

সিলেট স্কলার্সহোম স্কুলের ছাত্র ফাবিয়ান লাইফ সাপোর্টে,সবার কাছে দোয়া কামনা


সিলেট প্রতিনিধিঃসিলেট স্কলার্সহোম শিবগঞ্জ শাখার ছাদের ৫ম তলা থেকে পড়ে ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র ফাবিয়ান আলম গুরুতর আহত হয়েছে। গত সোমবার দুপুরে প্রতিষ্ঠানটির ৫ম তলার ছাদের প্রসাবখানা থেকে পড়ে সে আহত হয়। আশংকাজন অবস্থায় গতকাল বুধবার সকালে তাকে ঢাকার গ্রীণ লাইফ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় স্কলার্স হোম কর্তৃপক্ষ তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন বলে জানিয়েছেন হাফিজ মজুমদার ট্রাস্টের সদস্য সচিব লোকমান উদ্দিন চৌধুরী। 
শিশুটির পিতা ফারহিম আলম চৌধুরী সিলেটের ডাককে জানিয়েছেন, ফাবিয়ানকে লাইফ সাপোর্টে (ভেন্টিলেশন) রাখা হয়েছে। পুত্রের জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।
শিশুটির পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, সোমবার স্কুল ছুটির পর বেলা ২টার দিকে ফাবিয়ান স্কুলের ছাদে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নির্ধারিত টয়লেটে প্রসাব করতে যায়। তখন তার পিতা ছেলেকে বাসায় নিয়ে যাওয়ার জন্য নিচে অপেক্ষায় ছিলেন। টয়লেটের পাশে ছাদে রেলিং না থাকায় ফাবিয়ান ৫ম তলা থেকে নিচে পড়ে যায়। হঠাৎ করে ধপাস করে শব্ধ হওয়ায় লোকজন দৌড়ে আসেন। গুরুতর আহত পুত্রকে নিয়ে তার পিতা সিলেটের প্রায় সবকটি বে-সরকারী হাসপাতালে দৌড়ঝাঁপ করেন। কিন্তু, অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় মঙ্গলবার রাতেই স্বজনরা তাকে নিয়ে ঢাকায় উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক চাউর হয়েছে। স্কলার্সহোমের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, ছাদের ৫ম তলা থেকে ছাত্রটির নিচে পড়ে যাবার বিষয়টি তাদের কাছে বোধগম্য নয়। প্রতিষ্ঠানের সিসিটিভিতে বিষয়টি স্পষ্ট হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন ট্রাস্টের সদস্য সচিব। 
হাফিজ মজুমদার ট্রাস্টের সভা ॥ হাফিজ ট্রাস্টের এক জরুরী সভা বুধবার রাত ৮টায় স্কলার্স হোম শিবগঞ্জ শাখায় অনুষ্ঠিত হয়। ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান ও স্কলার্স হোম একাডেমিক কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ড. কবির চৌধুরী এতে সভাপতিত্ব করেন। সভায় বলা হয়, প্রতিষ্ঠানের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র ফাবিয়ান গত ১৭ জুন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। অসুস্থ হওয়ার কারণ অনুসন্ধানে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। মেজরটিলা ক্যাম্পাসের অধ্যক্ষ নাজমুল বারী জামালীকে আহ্বায়ক এবং সাপ্লাই শাখার অধ্যক্ষ আখতারী বেগম ও শিবগঞ্জ শাখার অধ্যক্ষ প্রাণবন্ধু বিশ্বাসকে সদস্য করে এ কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে লিখিত রিপোর্ট ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ বরাবরে পেশ করতে বলা হয়েছে। 
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভায় ছাত্রের চিকিৎসায় সর্বাত্মক সহযোগিতার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। স্কলার্সহোমের শিবগঞ্জ শাখার অধ্যক্ষ, শিক্ষকমন্ডলী ও ট্রাস্টের কর্মকর্তাবৃন্দ অসুস্থ ছাত্র ও তার পরিবারের পাশে থেকে সুচিকিৎসার ব্যাপারে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন বলে জানানো হয়। 
সভায় ট্রাস্টের সচিব লোকমান উদ্দিন চৌধুরী, পাঠানটুলা ক্যাম্পাসের ভাইস প্রিন্সিপাল আব্দুল আজিজ, হেড অব স্কুল জেবুন নেছা জীবন, দক্ষিণ সুরমা ক্যাম্পাসের ভাইস প্রিন্সিপাল রুমানা চৌধুরী, স্কলার্সহোম শিবগঞ্জ শাখার ইনচার্জ শানিজ ফাতেমা, ডা: জাবের আহমদ, ভানুলাল দাস, নিজাম উদ্দিন ইকবাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x