• শনিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৯

আমেরিকার নিউইয়র্ক সিটির সকল স্কুলে হালাল ফুড দেয়া হবে


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির সকল স্কুলে হালাল খাবার দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নিউইয়র্ক সিটির কম্পোট্রোলার স্কট স্ট্রিংগার। তিনি বলেন, গত বছর আমরা নিউইয়র্ক সিটির কয়েকটি স্কুলে হালাল ফুডের পাইলট প্রোগ্রাম চালু করেছিলাম। এবার নিউইয়র্ক সিটির প্রতিটি স্কুলে মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের জন্য হালাল ফুড দেয়া হবে। ইতিমধ্যেই আমরা আগামী বছরের হালাল ফুডের বাজেট পেয়েছি। গত ১০ মে জুম্মার নামাজের পূর্বে এক সংক্ষিপ্ত ভাষণে নিউইয়র্ক সিটির কম্পোট্রোলার স্কট স্ট্রিংগার এ কথা বলেন। মসজিদ পরিদর্শনকালে তিনি মুসল্লীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং জুমার নামাজের পূর্বে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন। আল আমিন মসজিদের প্রেসিডেন্ট জয়নাল আবেদীনের পরিচালনায় এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন আল আমিন মসজিদের খতিব ও ইমাম মাওলানা লুৎফর রহমান চৌধুরী, আল আমিন মসজিদের সাধারণ সম্পাদক কয়েস আহমদ। স্কট স্ট্রিংগার সালাম দিয়ে তার বক্তব্য শুরু করেন। তিনি বলেন, নিউইয়র্ক সিটি হচ্ছে সকল ধর্ম এবং বর্ণের মানুষের বসবাস। আমরা এই সিটিতে সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই এবং ধর্মীয় স্বাধীনতা অক্ষুন্ন রাখতে চাই। তিনি পবিত্র রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, আমরা মসজিদে সবার আসা নিরাপদ করতে চাই এবং নিউইয়র্ক সিটির প্রতিটি মসজিদ সুরক্ষা করতে চাই। তিনি বলেন, গত বছর আমরা নিউইয়র্ক সিটির কয়েকটি স্কুলে হালাল ফুডের পাইলট প্রোগ্রাম চালু করেছিলাম। এবার নিউইয়র্ক সিটির প্রতিটি স্কুলে মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের জন্য হালাল ফুড দেয়া হবে। ইতিমধ্যেই আমরা আগামী বছরের হালাল ফুডের বাজেট পেয়েছি। তিনি বলেন, নির্বাচনের সময় মুসলিম কম্যুনিটির সাথে এটি আমাদের প্রতিশ্রুতি ছিলো। আমরা সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছি। তিনি হালাল ফুড সম্পর্কে বলেন, প্রতিটি মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের জন্য হালাল ফুড সরবরাহ করা মানবিক অধিকার। শিশুরা যদি হালাল এবং স্বাস্থ্য সম্মত খাবার খেতে না পারে তাহলে তাদের বিকাশে সমস্যা হতে পারে। তিনি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমালোচনা করে বলেন, আমরা আমাদের জীবনে এমন একজন প্রেসিডেন্ট পেয়েছি যিনি ধর্ম এবং বর্ণ নিয়ে রাজনীতি করেন। মুসলিম সম্প্রদায়কে ভিন্ন চোখে দেখেন। যে কারণে ক্ষমতায় এসেই ইমিগ্র্যান্ট ও মুসলিমবিরোধী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। তিনি বলেন, নিউইয়র্কে যারা বসবাস করেন আমরা সকলের বসবাস এবং স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে চাই। তিনি বলেন, আমি আপনাদের পাশে ছিলাম এবং আগামীতেও থাকবো।
স্বাগত বক্তব্যে জয়নাল আবেদীন সিটি কম্পোট্রোলারকে ধন্যবাদ জানান আল আমিন মসজিদ পরিদর্শনের জন্য। এ ছাড়াও তিনি ধন্যবাদ জানান, স্কুলে হালাল খাবার সরবরাহে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য এবং দুই ঈদে ছুটির বিল পাশ করার জন্য। তিনি আরো বলেন, স্কট শুধু হালাল ফুডের ক্ষেত্রে নয়, মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতিটি কাজে তিনি এগিয়ে এসেছেন। তিনি বলেন, গত মাসে আলবেনীতে কর্মক্ষেত্রে পোশাকের স্বাধীনতা বিল পাশ হয়েছে। এটি গভর্নর স্বাক্ষর করলেই আইনে পরিণত হবে এবং ধর্মীয় পোশাক পরেই কাজে যাওয়া যাবে।
নিউইয়র্ক সিটির স্কুলগুলোতে মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের জন্য হালাল ফুড দেয়ার জন্য আন্দোলন দীর্ঘদিন ধরেই চলে আসছিলো। বিভিন্ন মুসলিম মানবাধিকার সংগঠন এই আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলো। অবশেষে সবার স্বপ্ন পূরণ হলো।

Leave a Reply

More News from আন্তর্জাতিক

More News

Developed by: TechLoge

x