• মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯

লন্ডনে প্রেসক্লাবের নৈশভোজে পররাষ্ট্র মন্ত্রী :প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র নিশ্চিত করণে প্রধানমন্ত্রী আন্তরিক

Posted on by

লন্ডনে প্রেসক্লাবের নৈশভোজে পররাষ্ট্র মন্ত্রী :প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র নিশ্চিত করণে প্রধানমন্ত্রী আন্তরিক

আমিমুল আহসান তানিম : গণ-প্রজাতরন্তি বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন খান বলেন প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র সমস্যার সমাধান বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বর্তমান সরকার । দেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের ভূমিকার কথা স্মরণকরে তিনি বলেন প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদানে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বলেন এই ব্যাপারে আমি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের স্পষ্ট ভাবে বলে দিয়েছি যে এটা করতে হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রী আরো বলেন প্রবাস থেকে যদি পাসপোর্ট করা যায় তবে ,প্রবাসীদের জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র করা সম্বব। লোকবল সংকটের কারণে মূলত এই প্রজেক্টটিত সম্পন্ন করতে বিলম্ব হচ্ছে বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশ মিশন গুলোর। তিনি বলেন প্রধান মন্ত্রী স্বয়ং প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র সমস্যা সমাধানে আন্তরিক ।


লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব আয়োজিত ‘কথোপকথন ও নৈশভোজ এবং প্রেস ফ্রিডম ডের আলোচনায় প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী মুনেম। লন্ডনের বাংলা মিডিয়ার একজন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদান এবং এই সংক্রান্ত সরকারের স্বদিচ্ছার কথা পররাষ্ট্র মন্ত্রী দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন।
উল্লেখ্য, জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকার কারণে প্রবাসীরা বাংলাদেশে নানা রকম হয়রানির শিকার হয়ে আসছেন। বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের আইন অনুযায়ী প্রতিটি গুরুত্ব পূর্ণ কাজের জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র থাকা বাঞ্চনীয়, যার ফলে প্রবাসীদের মধ্যে অনিরাপত্তা ও উৎকণ্ঠা পরিলক্ষিত হচ্ছিলো ,যা পররাষ্ট্র মন্ত্রীর ঘোষণার ফলে অনেকটা লাগব হবে বলে বিশ্লেষকদের ধারণা।
রবিবার পূর্ব লন্ডনের একটি রেষ্টুরেন্টে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথে ‘কথোপকথন ও নৈশভোজ’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন ব্রিটেনের বাংলা মিডিয়ার সাংবাদিকরা। লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জোবায়েরের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি পররাষ্ট্র মন্ত্রী ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধান মন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্ঠা, বাংলাদেশ কমিউনিটি ক্লিনিকের চেয়ারম্যান ডা: সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী।

নৈশভোজের আগে দুই পর্বে বিভক্ত কথোপকথন অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিলো ‘প্রেস ফ্রিডম ডে’র উপর আলোচনা। এতে মূল আলোচনা উপস্থাপন করেন সিনিয়র সাংবাদিক শামসুল আলম লিটন এবং ব্রডকাষ্টার ও গবেষক বুলবুল হাসান।

বাংলাদেশে বর্তমানে মাত্র ১১%, এমন তথ্য দিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, সরকার চেষ্টা করছে এই সংখ্যাও যাতে দ্রুত কমানো যায়। তিনি বলেন, দারিদ্র বিরোধী সংগ্রামে এত কম সময়ে সাফল্য অর্জন বাংলাদেশের জন্য একটি গর্বের বিষয়। বিশ্বে একমাত্র গণ চীন ও বাংলাদেশই পেরেছে এটি করতে।তিনি বলেন আমরা কাজ করে যাচ্ছি, হাইকমিশন গোলোর সেবার ম্যান বাড়াতে আমরা সচেষ্ট তিনি বলেন হাইকমিশন গোলর সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে তারা ফোন ধরতে চাননা এই সেবার ম্যান বাড়াতে এই সমস্যা গোল আমরা চিন্নিহিত করে উন্নত করার চেষ্টা করছি।

উসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সিলেট লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট চালুর ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রী কোন সুনির্দিষ্ট সময় বলতে পারেননি তবে তিনি বলেন এই সরকারের মেয়াদ শেষের আগে সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন এছাড়াও আইএস বধু শামীমা বিষয়ে আইটিভিকে সাক্ষাতকার, ৩০ ডিসেম্বরের বিতর্কিত নির্বাচন, সিলেটে হাসপাতাল নির্মান ও ঐতিহ্য রক্ষার আন্দোলন, সাগর-রুনির বিচার প্রসঙ্গ, এমন সব বিষয়ে কথোপকথন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের সম্মুখিন হন পররাষ্ট্র মন্ত্রী।

Leave a Reply

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x