• শুক্রবার, অক্টোবর ৩০, ২০২০

লালমনিরহাট ১ হাতীবান্ধা-পাটগ্রামে আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান

Posted on by

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাট-১ হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম আসনে আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সদস্য ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান।

পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান ১ জুলাই ১৯৬৬ সালে পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের সম্ভ্রান্ত প্রধান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৯৬ সালে আইন পেশায় নিয়োজিত হবার পর থেকে গরীব দুখি অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। স্বপ্ন যার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর তিনি কি থেমে থাকতে পারেন তাইতো অনারেবল সোসাইটি অফ লিংকনস ইন থেকে ব্যারিস্টার এট ল ডিগ্রী অর্জন করার পর সাধারন মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন ।

বর্তমানে তিনি সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগের আইনজীবী হিসাবে কাজ করে যাচ্ছেন। হাতীবান্ধা ও পাটগ্রাম মিলেই লালমনিরহাট ১ আসন। নির্বাচনকালীন সহিংসতায় এখানে নিহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।বিভিন্ন সামাজিক বা রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে নিজের পক্ষে জনসমর্থন জোগাড়ের চেষ্টা করছেন।

৫ই জানুয়ারির ২০১৪ নির্বাচন পূর্ববর্তী এবং পরবর্তি হামলা মামলা জর্জরিত অসংখ্য মানুষের সাহায্য সহযোগীতার পাশাপাশি বিনামূল্যে আইনি সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন বছরের পর বছর।

হাসান রাজীব বিএনপি তথা ধানেরশীষ নিয়ে নির্বাচন করার আগ্রহ প্রকাশ করায় অত্র অঞ্চলের জনসাধারণ, বিশেষ করে ১৯৭১ সালে পাকহানাদার মুক্ত এলাকা হিসাবে পরিচিত পাটগ্রাম ও হাতীবান্ধা এলাকার সবাধীনতাকামী দেশ প্রেমিক হিন্দু, মুসলিম আপামর জনসাধারন মাঝে ধানেরশীষে ভোট প্রদান করার জন্য ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ করা যাচ্ছে।

মনোনয়ন প্রত্যাশী ব্যারিস্টার হাসান রাজিব প্রধান জাতীয়তাবাদী মূল্যবোধে বিশ্বাসী এবং সমাজে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির অধিকারী আপামর জনসাধারনকে সাথে নিয়ে হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে কৌশলগত ভাবে গণসংযোগ ও সাংগঠনিক অবস্থা শক্তিশালী করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন দিনের পর দিন । এছাড়া দলীয় কর্মসূচি পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মত ।

ইতিমধ্যে সৎ যোগ্য ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রতিক হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করা হাসান রাজীব প্রধান সম্পর্কে পাটগ্রাম উপজেলা বিএনপির তৃনমূল নেতাকর্মীদের কাছে জানতে চাইলে বলেন , ব্যারিস্টার হাসান রাজীব বিগত নির্বাচন পরবর্তি আন্দোলন নির্যাতিত নেতাকর্মীদের খোঁজখবর নেয়ার পাশাপাশি নিহত পরিবারের সদস্যদের দোকান ঘরের ব্যবস্থা, সংসারের ব্যয় নির্বাহের জন্য আয়ের সংস্থান ও ছেলে মেয়েদের স্কুলে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।

এছাড়া বিএনপির দলীয় কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে যারা জেল জুলুম হয়রানির শিকার হচ্ছেন তাঁদের পাশে দাড়িয়ে তিনি সবসময় আইনি সহায়তা ও সাহায্য সহযোগীতা করে যাচ্ছেন। এলাকা ঘুরে শোনা গেল সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেকার যুবকদের নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্টানে চাকুরীর ব্যবস্থা করেছেন। যেকোন দুর্যোগ কালীন সময়ে ছুটে এসেছেন পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং কাধে হাত রেখে সাহস যুগিয়েছেন যা ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলে হয়েছে প্রশংসিত।

হাতীবান্ধা উপজেলা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ মনে করেন ব্যারিষ্টার হাসান রাজিব প্রধান আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সকলের সহযোগিতায় লালমনিরহাট এক (হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম) নির্বাচনী আসনে দীর্ঘদিনের চাওয়া ধানেরশীষ নিয়ে আসবেন এবং সেই সাথে বাস্তবায়ন হবে দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নের।

আসন্ন নির্বাচন নিয়ে ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধানের কাছে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন “পৃথিবীতে অনেক জাতি আছে যারা যুগযুগ ধরে গনতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেও কাংক্ষিত বিজয় অর্জন করতে পারেনা তাই হারানো গনতন্ত্র পুনুরুদ্ধারের জন্য জাতীয় ঐক্যের প্রতিক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিই একমাত্র পথ।”

Leave a Reply

More News from গ্রাম বাংলা

More News

Developed by: TechLoge

x