• বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০

রিয়াদে শীর্ষ সম্মেলন বয়কট করবে ব্রিটেন-যুক্তরাষ্ট্র

Posted on by

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,সৌদি আরবঃ সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিখোঁজের জের ধরে সৌদি আরবের একটি বড় আন্তর্জাতিক সম্মেলন বর্জন করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন বলে ধারণা পেয়েছে বিবিসি।

গত ২ অক্টোবর নিজের বিয়ের কাগজপত্র নিতে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেট ঢোকার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন নিউইয়র্ক টাইমসের এ প্রদায়ক।সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের সমালোচক হিসেবে পরিচিত খাশোগি বছরখানেক আগে যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছানির্বাসনে গিয়েছিলেন।তুরস্কের কর্তৃপক্ষের দাবি,সৌদি গুপ্তচররা কনস্যুলেটের ভেতরেই খাশোগিকে হত্যা করে গুম করে ফেলেছে।রিয়াদ যে অভিযোগ জোরালোভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে।মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও এ ঘটনায় মিত্র সৌদি আরবের ওপর চাপ বাড়াচ্ছে। খাশোগির নিখোঁজে সৌদি আরব দায়ী হলে তাদের শাস্তি দিতে পারেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

খাশোগির ভাগ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন অসংখ্য গণমাধ্যম ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠানও রিয়াদে চলতি মাসে হতে যাওয়া বিনিয়োগ সম্মেলন থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।মরুভূমির দাভোসখ্যাত এ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মনুচিন ও যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমন্ত্রী লিয়াম ফক্স নাও অংশ নিতে পারেন বলে বিবিসিকে বেশ কয়েকটি কূটনীতিক সূত্র জানিয়েছে।সম্মেলন ঘিরে ফক্সের সূচিই এখন পর্যন্ত ঠিক হয়নি বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিভাগের এক মুখপাত্র।খাশোগি সৌদি গুপ্তচরদের হাতেই মারা পড়েন, এমনটি নিশ্চিত হলে সৌদি আরবকে দায়ী করে একটি যৌথ বিবৃতি দেয়া নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপিয়ান কূটনীতিকদের মধ্যে আলোচনাও চলছে।

বিবিসি জানিয়েছে,সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান তার সংস্কার কার্যক্রমকে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছে তুলে ধরতেই এবারের এ সম্মেলন আয়োজন করছেন।মনুচিন ও ফক্স,এদের কেউ-ই সেখানে উপস্থিত না হলে তা সৌদি আরবের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা হয়ে দেখা দেবে বলে ধারণা পর্যবেক্ষকদের।নিখোঁজ সাংবাদিকের ভাগ্য নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসও।খাশোগির কী হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়ার পর এ নিয়ে বিভিন্ন দেশের সরকারের উপযুক্ত প্রতিক্রিয়া দেখানো উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, খাশোগির মৃত্যুর জন্য যদি সৌদি আরব দায়ী হয়,তবে তাদের বড় ধরনের শাস্তি দেবে যুক্তরাষ্ট্র।তিনি বলেন, খুবই বিরক্ত ও রাগান্বিত হব, যদি এমনটিই ঘটে।তবে রিয়াদের কাছে অস্ত্র বিক্রি স্থগিত রাখার সম্ভাবনাও নাকচ করেছেন এ মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x