• শনিবার, অক্টোবর ৩১, ২০২০

নিষেধাজ্ঞা শেষে লন্ডনে প্রথম ম্যাচ খেললেন আশরাফুল

Posted on by

এম রহমান বাবলু :: জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলের  নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত কাল ১৩ অগাস্ট।আজ ১৪ অগাস্ট ক্রিকেটের এই মহানয়ককে ব্যাট বল হাতে খেলতে দেখা গেলো লন্ডনের হ্যাকনি মার্শ সেন্টারের ক্রিকেট মাঠে। লন্ডন ক্রিকেটে লীগ (এল সি এল ) আয়োজিত মাহবুব এন্ড কো ও যে এম জি কার্গো টি ১০ টুর্নামেন্টে লন্ডন ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলেছেন তিনি। প্রমান করেছেন আশরাফুল ফুরিয়ে যাননি।

২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে তিন বছর নিষিদ্ধ হয়েছিলেন আশরাফুল।অবশেষে, সেই পাপমোচন শেষে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে এক সময়ের দেশ সেরা এই ব্যাটসম্যানের । এখন থেকে ঘরোয়া ক্রিকেটে আবারো নিয়মিত হতে পারবেন তিনি। তবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার বিষয়টি এখনো ঝুলে আছে পারফর্মেন্সের বেড়াজালে। একটা সময় ছিলো বাংলাদেশের ক্রিকেট মানেই আশরাফুল। দেশের ক্রিকেটের বড় বিজ্ঞাপন হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে একসময় দাপিয়ে বেড়িয়েছেন টাইগার ক্রিকেটে অনেক আশার ফুল হয়ে ফোঁটা এই আশরাফুল।

গত তিন বছরের নিষেধাজ্ঞায় আশরাফুল মিস করেছেন বিশ্বকাপ ক্রিকেট, টি-২০ বিশ্বকাপ, বিপিএল, ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট। না খেলতে পারায় কষ্ট রয়েছে। কিন্তু সেসব আর মনে রাখতে চান না তিনি । সবকিছুকে পেছনে ফেলে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার অপেক্ষায় এখন আশরাফুল। ফিরেই যেন হারিয়ে না যান, সে জন্য ফিটনেস ধরে রাখতে কঠোর পরিশ্রম করছেন। এখন অপেক্ষা শুধু জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দলের নির্বাচকদের নজর কাড়া ।

দেশে ফিরেই খেলায় নামার কথা জানিয়ে আশরাফুল। লন্ডনের গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এবার আমি আমার পারফরম্যান্স দিয়ে নির্বাচকদের নজরে আসতে পারব ইনশাল্লাহ । আমি এরই মধ্যে লম্বা সময়ের ট্রেনিং করেছি। দেশে ফিরেই আসন্ন জাতীয় ক্রিকেট লিগকে সামনে রেখে অনুশীলন শুরু করব।

তিনি বলেন, আজকের দিন অর্থাৎ ২০১৮ সালের ১৪ আগস্ট দিনটার জন্য আমি অপেক্ষায় ছিলাম । এটা আসলে পাঁচ বছরের চেয়েও বেশি কিছু। যদিও আমি গত দুই মৌসুম ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছি।আমেরিকার একটি ক্লাবেও খেলিছি কিছু দিন। এবার জাতীয় দলের জন্য চেষ্টা করার ব্যাপারে আমার আর কোন বাধা রইল না। আবারও বাংলাদেশের হয়ে খেলতে পারাটা আমার সবচেয়ে বড় অর্জন হবে।

Leave a Reply

More News from কমিউনিটি

More News

Developed by: TechLoge

x