• মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস থেকে আরও ১৮ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

Posted on by

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,যুক্তরাষ্ট্রঃ চলতি সপ্তাহে আরো ১৮ জন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে আমেরিকার টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের লারেডো সেক্টর বর্ডার পেট্রোলকর্মীরা।পৃথক ঘটনায় এই ব্যক্তিদের গ্রেফতার করা হয়।বৃহস্পতিবার মেক্সিকোর নুয়েভো লারেডো সঙ্গে রিও গ্র্যান্ডে নদী পার হওয়ার সময় ৯ অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়।লারেডো সেক্টরের কর্মকর্তারা জানান,আরো একটি দল সীমান্ত পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করছেন বলে জানতে পারেন তারা।কর্মকর্তারা আরো জানান,চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে অবৈধ বাংলাদেশিদের আরো দুটি দলকে গ্রেফতার করেছে লারেডো স্টেশনের কর্মীরা।গত সোম ও মঙ্গলবার অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দেয়ার সময় ৯ বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করা হয়।

সেক্টর কর্মকর্তারা আরো জানান, কেবল লারেডো সেক্টর দিয়েই গত বছরের ১ অক্টোবর থেকে চলতি মাস পর্যন্ত ২৭৪ জন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসব ব্যক্তিদের অধিকাংশই মেক্সিকোর দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।কর্মকর্তারা জানান, ২৭৪ জনকে গ্রেফতার ছাড়াও রিও গ্র্যান্ডে নদী থেকে এক বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার করেছেন তারা। ওই ব্যক্তি নদীতে ডুবে মারা গেছেন বলে জানান।পরে কর্মকর্তারা ওই মরদেহ ওয়েব কাউন্টি মেডিকেল এক্সামিনারের কাছে শনাক্তের জন্য হস্তান্তর করেন। মেডিকেল পরীক্ষা শেষে তারা জানান, ওই মৃত ব্যক্তি একজন বাংলাদেশি।আমেরিকার কর্মকর্তারা জানান, ওই এলাকা দিয়ে বাংলাদেশি নাগরিকদের আমেরিকায় অনুপ্রবেশের বিশেষ কোনো কারণ নেই।তবে মানবপাচারকারী চক্ররাই মূলত ওই রুটটি নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। তারাই ঠিক করে দেয় কারা কোন পথে সীমান্ত অতিক্রম করবে।উল্লেখ্য, মানব পাচারকারী চক্র প্রথমে বাংলাদেশিদের দক্ষিণ আমেরিকা পাঠায় সেখান থেকে মেক্সিকো হয়ে আমেরিকায় প্রবেশ করে এসব অবৈধ অভিবাসন প্রত্যাশীরা। পুরো প্রক্রিয়ার জন্য মানবপাচারকারী জনপ্রতি ২৭ হাজার ডলার পর্যন্ত অর্থ নিয়ে থাকে।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x