নির্বাচনকে সামনে রেখে ষড়যন্ত্র করছে সরকার: বিএনপি

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।দলটির ভাষ্য,আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার এখন আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। সুতরাং তাদেরই (আওয়ামী লীগ) নির্বাচিত ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপি আয়োজিত ‘মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা এসব কথা বলেন। এসময় বিএনপি নেতারা বলেন, লেভেল প্লিয়ং ফিল্ড না হলে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে না। তবে তারা সেটা করবে না। কারণ গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ৩০টি আসনও পাবে না। এজন্য আওয়ামী লীগের ভয়।বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা নিরামিষ কর্মসূচি দিচ্ছি। কিন্তু আমরা বুঝেশুনেই কর্মসূচি দিচ্ছি। তবে আমাদের নেত্রী জেলে থাকায় ওবায়দুল কাদের ঘুম নেই। কারণ আমরা কেনো জ্বালা-পোড়াও আন্দোলনকরছি না।

দলের স্থায়ী কমিটির আরেক প্রভাবশালী সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, স্বাধীনতার চেতনার ভয়ঙ্কর রূপ দেখছি। স্বাধীনতা চেতনা এখন ব্যবসার ‘রাজনৈতিক ব্যবসা’ পরিণত হয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেন, সরকার জিয়াউর রহমানের নাম বাংলাদেশের মাটি থেকে তু্লে দিতে চান। কারণ জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার যুদ্ধ ঘোষণা করেছিলেন এবং তিনি বাকশাল ধ্বংস করে দেশে গণতন্ত্র এনেছিলেন। এই কারণে জিয়াউর রহমানকে তারা (সরকার) সহ্য করতে পারে না।আওয়ামী লীগ সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, স্বাধীন দেশে গণতন্ত্র রাখতে চাও তাহলে নিরপেক্ষ নির্বাচন দাও। বিএনপি মাঠে আছে না কি নিরপেক্ষ নির্বাচন দিয়ে দেখুন। আর না দিলে আমরা সংগ্রাম করে নিরপেক্ষ সরকার আদায় করবো।সভায় বিএনপির নেতাকর্মীদের কারাগারের থাকার কথা উল্লেখ করে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, এর ফলে কি আমাদের সংগ্রাম থেমে গেছে? থামেনি। আর থামবেও না। এটাই স্বাধীনতার সংগ্রাম। এটা চলতেই থাকবে। তিনি বলেন, গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার আন্দোলন চলছে। এই মুক্তির আন্দোলন সরকার পতনের আন্দোলনে রূপ নেবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান বলেন, খালেদা জিয়াকে একটি মিথ্যা মামলায় কারারুদ্ধ করা হয়েছে। এটা কোন সভ্য দেশে হতে পারে না। তাই আজকে আমাদের শপথ নিতে হবে বেগম জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আনবোই। অন্যথায় আমরা ঘরে ফিরবো না।দলের আরেক স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, সরকার নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করেছে। তাই আমরা নির্বাচনের জন্য লড়াই করছি। আর এজন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া জেলে। কিন্তু আমরা বেগম জিয়ার নেতৃত্বে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনে অংশ নিতে চাই।বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার এত বছর পরও গণতন্ত্র, বাক-স্বাধীনতা, মানুষের অধিকার, আইনের শাসন ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য আমরা লড়াই করছি। সুতরাং মুক্তিযুদ্ধ এখনও চলছে। মুক্তিযুদ্ধ শেষ হয়নি।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x