• বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১, ২০২০

জাকিরের মৃত্যুর পর রিমান্ড শুনলেই আতঙ্ক লাগে : রিজভী

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘পুলিশি রিমান্ডের নামে নির্যাতনে ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেন মিলনের মৃত্যুর পর আমরা এখন রিমান্ডের কথা শুনলেই আতঙ্কিত হয়ে পড়ি।জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশি হেফাজত (রিমান্ড) শেষে কারাগারে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়া ছাত্রদলের ঢাকা মহানগরীর নেতা জাকির হোসেন মিলনের জন্য আজ বৃহস্পতিবার বিএনপির পক্ষ থেকে দুদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আগামীকাল শুক্রবার ঢাকাসহ সারা দেশে মসজিদে মসজিদে দোয়া মাহফিল এবং আগামী রোববার (১৮ মার্চ) কালো ব্যাজ ধারণ ও বিক্ষোভ মিছিল।গত সোমবার ঢাকা মহানগর উত্তরের সহসভাপতি ও তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন মিলন মারা যান। এর তিন দিন আগে তাঁকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের একটি কর্মসূচি থেকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।জাকিরের পরিবারের অভিযোগ, পুলিশি নির্যাতনে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। যদিও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

জাকিরের বাড়ি শরীয়তপুরের সখিপুর থানার বাহাউদ্দিন মুন্সিকান্দিতে। জাকিরের স্ত্রীর নাম তানিয়া আক্তার। ওই দম্পতির মাহি আক্তার (৮) ও আয়েশা আক্তার (আড়াই বছর) নামের দুই সন্তান রয়েছে। পরিবার নিয়ে তিনি গাজীপুরের টঙ্গী থানার মাজুখানে থাকতেন।বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘আজও স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি শফিউল বারী বাবুকে আাদালতে নিয়ে রিমান্ডের আবেদন করা হবে। এ ছাড়া ছাত্রদল সভাপতি রাজীব আহসান, মিজানুর রহমান রাজসহ তরুণ নেতাদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিচ্ছে। আমরা রিমান্ডের নামে পুলিশি নির্যাতনের নিন্দা জানাচ্ছি।’

এ সময় রিজভী সরকারের সমালোচনা করে বলেন, নিজেদের প্রত্যাশা পূরণ না হওয়ায় খাপছাড়া কথা বলছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তাঁরা মনে করেছিলেন, খালেদা জিয়া কারাগারে গেলে বিএনপি সংঘাতে যাবে। তখন আওয়ামী লীগ নিজেরা জ্বালাও-পোড়াও করে বিএনপির ওপর দমন-নিপীড়ন চালাবে।খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর পরও বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি দেওয়ায় ওবায়দুল কাদের ঠিক থাকতে পারছেন না বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহদপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমদ ও তাইফুল ইসলাম টিপু।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x