• রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

সরকারি খরচে নির্বাচনি প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী: মওদুদ

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ সরকারি খরচে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তবে সরকারি খরচে এই প্রচার-প্রচারণা বন্ধে নির্বাচন কমিশন কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় কমিশনকে সরকারের তল্পিবাহক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স কক্ষে খালেদা জিয়াসহ ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীর মুক্তির দাবিতে ‘প্রতিহিংসার রাজনীতি : জাতীয় নির্বাচন ও বর্তমান প্রেক্ষাপট’  শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ লেবার পার্টির উদ্যোগে এই সভার আয়োজন করা হয়।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, দেশে উন্নয়ন করলে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল হবে। এটা ভালো কথা। কিন্তু উন্নয়নের কথা বলে নৌকায় ভোট চাইবেন এটা ঠিক নয়। কেননা, নির্বাচন কমিশনের বিধিমালায় আছে, নির্বাচনের সময় কোনও মন্ত্রী, এমপি উন্নয়নের কোনও ওয়াদা করতে পারবেন না। এসব করা মানে জনগণকে পরোক্ষভাবে ঘুষ দেয়। তাই এটা বেআইনি। তারা (আওয়ামী লীগ) জানেন, তফসিল হলে তারা এই প্রচারণা করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন তো সরকারের তল্পিবাহক।

নির্বাচন কমিশনকে উদ্দেশ করে মওদুদ বলেন, হয় সরকারি খরচে প্রচারণা বন্ধ করেন, নয়তো আমাদেরও ধানের শীষের পক্ষে ভোট চাওয়ার সুযোগ করে দেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য আরও বলেন, এর আগেও অনেক কিছুতে সংবিধানের ৫, ৭ ও ১১তম সংশোধনীর মাধ্যমে বৈধতা দেওয়া হয়েছে। তাই সংবিধান সংশোধন করে নির্বাচন দিন। যেখানে জনগণই সব ক্ষমতার উৎস সেখানে সংবিধান বাধা হয়ে দাঁড়াবে না।

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। কিন্তু, এই সরকার সেই মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে। প্রায় দশ বছর আগে তারা ক্ষমতায় আসার পর দেশের প্রত্যেক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দলীয়করণ করে তাদের নিয়োগ দিয়েছেন। স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্ত, শিক্ষক নিয়োগে দলীয়করণ ও অর্থ লেনদেনের মাধ্যমে শিক্ষাঙ্গনের প্রত্যেকটি অঙ্গকে সরকার দুর্বল করে দিয়েছে।

দেশে এমন কোনও পরীক্ষা নেই যে প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ঘটেনি উল্লেখ করে প্রশ্নফাঁস বন্ধে একটি শিক্ষা কমিশন গঠনে সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছেন ব্যারিস্টার মওদুদ। তিনি বলেন, প্রশ্নফাঁস বন্ধে একটি শিক্ষা কমিশন গঠন করা হোক। দেশকে ভালোবাসেন ও শিক্ষাবিদ এমন লোকদের দ্বারা একটি কমিশন গঠন করুন। এই কমিশন গঠনে প্রয়োজন হলে বিএনপি আপনাদের পাশে থাকবে বলে কথা দিচ্ছি।

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে ছাড়া দেশে কোনও নির্বাচন হবে না। তাকে ছাড়া দেশে কোনও নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না। বেগম জিয়াকে সঙ্গে নিয়েই আমরা আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো।আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, বরকতউল্লাহ বুলু, মীর মো. নাসির উদ্দিন, সাবেক জ্বালানি উপদেষ্টা প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান, ঢাকা মহানগর উত্তর লেবার পার্টির সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী, আমিরুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট ফারুক রহমান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব প্রকৌশলী মো. ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ।

Leave a Reply

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x