• বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে মামলার হুমকি কাদেরের

Posted on by

ইউএনএন বিডি নিউজঃ পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে আনা অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে মামলার মুখোমুখি হতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।সেতুর নকশায় ভুল রয়েছে দাবির পাশাপাশি এর নির্মাণ খরচ বাড়িয়ে সরকারি দলের নেতাকর্মীরা দুর্নীতি করছেন বলে বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় একথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

শুক্রবার রাজধানীর কমলাপুরে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের কাদের বলেন, “এখন ফখরুল সাহেব বলছেন, পদ্মাসেতুর ডিজাইনে ভুল আছে। ডিজাইনে ভুল আছে প্রমাণ করতে আসুন, তথ্য উপাত্ত নিয়ে আসুন।

“প্রমাণ না দেখাতে পারলে আপনাকেও মামলা ফেইস করতে হবে।”

‘জোড়াতালি দিয়ে পদ্মা সেতু করা হচ্ছে’ মন্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ‘পাগল’ অভিধা পাওয়াসহ ক্ষমতাসীনদের সমালোচনার মুখে থাকা দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাফাইয়ে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে এসে মির্জা ফখরুল বলেন, “একটা ভ্রান্ত ও ভুল ডিজাইনের উপরে পদ্মাসেতু নির্মিত হলে সেটা যে টিকবে না, সেটা তো উনি (খালেদা জিয়া) ভুল বলেননি। বরং তিনি সাচ্চা দেশপ্রেমিকের কাজ করেছেন।”

দুর্নীতির জন্যই সরকার এই প্রকল্প নিয়ে এগোচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, “এখানে আট হাজার কোটি টাকার প্রজেক্টকে নিয়ে চলে গেছে প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্টে। এখানে তোমরা সমানে দুর্নীতি করছ-এটা পত্র পত্রিকায় এসেছে। আমরা বলছি, এখানে দুর্নীতি হচ্ছে। এটার আন্তর্জাতিক তদন্ত হোক।”

এর আগে বিদেশে খালেদা জিয়ার সম্পদের খবর নিয়ে গত ডিসেম্বরে মন্তব্য করায় দলনেত্রী খালেদার পক্ষ থেকে আইনজীবীর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে আইনি নোটিস পাঠানোর কথা সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছিল বিএনপি।

তবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে কোনো নোটিস আসেনি দাবি করে আসা  আওয়ামী লীগ নেতারা বিএনপি আদৌ কোনো নোটিস পাঠিয়েছে কিনা তা নিয়ে সংশয় জানিয়ে আসছেন।

‘আইনি নোটিস না পাঠিয়ে’ নোটিসের কথা বলায় পাল্টা উকিল নোটিস পাঠানো হবে বলে শীতবস্ত্র বিতরণের সময় সাংবাদিকদের বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী জিয়া পরিবারের যে দুর্নীতির খবর তুলে ধরেছেন, সেটা দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমের তথ্যের ভিক্তিতে। এই তথ্যগুলো মিডিয়া দিয়েছে, এটা প্রমাণিত। এদের দুর্নীতির কেচ্ছা রূপকথার কাহিনীকেও হার মানায়। প্রধানমন্ত্রীর সৎ সাহস আছে বলে তিনি সত্যকে তুলে ধরেছেন। এতে বিএনপি নেতাদের অন্তর্জালা শুরু হয়ে গেছে।

“বিএনপিকেও উকিল নোটিস দেওয়া হচ্ছে। ভুয়া, মিথ্যা উকিল নোটিস পাঠানোর জন্য বিএনপিকেও উকিল নোটিস দেওয়া হচ্ছে। অপেক্ষা করুন।”

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিবন্ধিত দল ছাড়া অন্য কেউ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে কাদের বলেন, “দেখুন, এই প্রশ্নের জবাব দেবে নির্বাচন কমিশন; তা আমি দিতে পারি না। আমি যতটুকু জানি, এখানে নিবন্ধিত কোনো দল ছাড়া অন্য কেউ অংশগ্রহণ করা কথা নয়। কমিশন অ্যালাও করা ঠিক না।”

শীতবস্ত্র বিতরণে এসে এই শীতে বিএনপির কোনো কার্যক্রম নেই দাবি করে তাদের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগ নেতা ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, “এবারের শীত ৫০ বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। তীব্র শীতের মধ্যে আমাদের নেত্রী টেলিভিশনের স্ক্রলে পঞ্চগড়-ঠাকুরগাওয়ের তীব্র শীতের কথা চোখে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাকে পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশ্যে যেতে বললেন… শীত বস্ত্র বিতরণের জন্য।”

কাদের বলেন, “সেদিন আমরা চলে গেছি। রাতে আমরা প্রচণ্ড শীতের মধ্যে সৈয়দপুরে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছিলাম। আমরা নগদ ৩২ লাখ টাকা ও ৩৭ হাজার কম্বল বিতরণ করি। আমাদের রাজনীতি নিষ্ঠুর হয়ে গেছে। এটা শুধু প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য। রাজনীতি শুধু প্রতিপক্ষকে বিষোদগার নয়।মানুষের দুঃখ-কষ্টের এ অবস্থায়ও আমরা আওয়ামী লীগ ছাড়া কোনো রাজনৈতিক দলকে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখিনি। হয়তো যাওয়ার জন্য অনেকে যায়। সেটাতো একদিনের জন্য লোক দেখানো সাহায্য।ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ।

Leave a Reply

More News from বাংলাদেশ

More News

Developed by: TechLoge

x