আজ বৃহস্পতিবার,২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী

লন্ডনে অপ্রতিরোধ্য নাইফ ক্রাইম!একদিনে ছুরিকাঘাতে ২জনের মৃত্যু: আরো দুইজন গুলিবিদ্ধ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭ ৭:৪৭ অপরাহ্ণ   আপডেট: সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৭ at ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ
 
ইউকে বিডিটাইমস ডেস্ক:  লন্ডনে সোমবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় ছুরিকাঘাতে দুইজনের  মৃত্যু হয়েছে ও গুলিবিদ্ধ ২জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রথম ঘটনাটি ঘটে সোমবার সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে কেমডেনের হ্যাম্পস্টেড রোডে। সেখানে ছুরিকাঘাতে ২০ বছর বয়সী এক তরুনের মৃত্যু হয়। মেট পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিস্ট সন্দেহে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত কিশোরটিও ছুরিকাহত ছিল বলে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড জানিয়েছে। তবে তার অবস্থা গুরুতর নয়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।

এদিকে নর্থ লন্ডনের পর সোমবার ৪:১৫মিনিটে ওয়েস্ট লন্ডনের হান্সলো এলাকার রোজবারি রোড়ে ছুরিকাঘাতে ২৯ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়।পুলিশ  জানায় ঘটনার পরপরই পুলিশ উপস্থিতি ঘটলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এসময় ছুরিকাঘাতে আহত ব্যক্তি রাস্তায় পড়েছিল। কিছুক্ষনের মধ্যে প্যারামেডিকেল টিম উপস্থিত হয়। পরবর্তীতে এয়ার এ্যাম্বুলেন্স কল করা হলেও ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
মেট পুলিশ এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

    

ভয়াববহ আকারে বেড়েছে নাইফ ক্রাইম। গত ২০ মে থেকে দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ঝরে গেছে ১২টি তরতাজা প্রান। ডিটেকটিভ ও ইন্টেলিজেন্স বিভাগের সদস্যরা বলছেন, এসব অপরাধের সাথে জড়িতদের অধিকাংশই স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী।

মেট পুলিশ সূত্র জানায়, ২০১৫ থেকে ১৭ সাল পর্যন্ত লন্ডনের বিভিন্ন স্কুল থেকে ৫৩৩টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ২১৫টি অস্ত্র পাওয়া যায় ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সী তরুনদের কাছ থেকে। ৪টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয় এমন শিশুদের কাছে যাদের বয়স ছিলো মাত্র ১০ বছর। পুলিশ জানায়, গত এক সপ্তাহে লন্ডনের বিভিন্ন স্থান থেকে ৩০০ নাইফ জব্দ করা হয়েছে। লন্ডনে বিভিন্ন অপরাধের সাথে স্কুল পড়োয়াদের সম্পৃক্ততা এবং গ্যাং কালচার বৃদ্ধিতে জনমনে উদ্বেগের সৃস্টি হয়েছে।

অপর দিকে ইস্ট লন্ডনের নিউহাম কাউন্সিলের ফরেস্ট গেইট স্টেশনের পাশে ২জনকে গুলিবিদ্ধ অস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ। আহত একজনের অবস্থা আশংকাজনক। অপরজনের লাইফ চেইঞ্জিং ইনজুরি হয়েছে। এঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এক প্রত্যক্ষ দর্শী জানিয়েছেন ঘটনার ৫মিনিটের মধ্যেই শতাদিক পুলিশ আসে। আমরা জানিনা এসব কি হচ্ছে।

নিউহামবারার পুলিশ প্রধান আদি এডেলাকান বলেছে এঘটনার পরে উক্ত এলকায় অতিরিক্ত অফিসাররা দায়িত্ব পালন করবেন যাতে করে প্রতিশোধমূলক পাল্টা কিছু ঘটতে না পারে। এই ঘটনারও তদন্ত শুরুত করেছে পুলিশ। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1062 বার
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 

ক্যালেন্ডার