আজকে

  • ৩রা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
  • ৭ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

লন্ডনে গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০১৮ সম্পন্ন 

Published: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ ৯:৩১ অপরাহ্ণ    |     Modified: মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ ৯:৩১ অপরাহ্ণ
 

স্পোর্টস ডেস্কঃ

বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার  মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হল লন্ডনে গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০১৮।গত ৯ সেপ্টেম্বর রবিবার লন্ডনে প্রথম গোলাপগঞ্জ থানা ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট সুন্দর ও সফল ভাবে অনুষ্ঠিত হয় লন্ডনের ইস্টলন্ডন ইউনিভার্সিটির বিশাল খেলার মাঠে। জমকালো এই ঐতিহাসিক খেলায়  অংশগ্রহণের জন্য লন্ডন ছাড়া ও লুটন, বার্মিংহাম, লেস্টার, পোর্স্টমাউথ সহ  যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর  থেকে খেলোয়ারগণ  অংশ গ্রহণ করেন। ২০১৮ সালের চ্যাম্পিয়নদের শিরোপা জয়ের জন্য যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে ৪৮ টি দল খেলার মাঠে লড়াই করেন । শত শত দর্শক এই আকর্ষণী খেলা উপভোগ করেন এবং খেলা শেষে আয়োজকদের প্রশংসা করেন. নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে অনেক  দর্শক বলেছেন লন্ডনের ভিতর গোলাপগনজের এতো ভালো ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার লুকিয়ে আছেন যা এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের মাধ্যমে তাদের খুঁজে বের করা হলো. খেলার জগতেও গোলাপগঞ্জ যুক্তরাজ্য প্রবাসীরা পিছিয়ে নয় তা আজ প্রমান হলো, আগামীতে আরো বড় পরিসরে খেলার আয়োজন করার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন.

এডভান্স এবং বিগিনার দুই ভাগে বিভক্ত করে প্রায় বিশটি কোর্টে দুই পর্বের এই খেলা একটানা সকাল ১১ ঘটিকা থেকে সন্ধ্যা ৭ ঘটিকা পর্যন্ত অনুষ্টিত হয়.

খেলা শেষে এক মনোজ্ঞ পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্টানের আয়োজন করা হয় খেলা পরিচালনা কমিটির সভাপতি হারুন মিয়ার সভাপতিত্বে এবং আমিনুর রহমান ও সুলতান এমদাদ এর যৌথ পরিচালনায়. এতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন ব্রিকফিল্ড কাউন্সিল এর সম্মানিত মেয়র এবং গোলাপগঞ্জের কৃতি সন্তান কাউন্সিলর আবুল কালাম আজাদ এবং বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন টাওয়ার  হ্যামলেটেস কাউন্সিলের ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম, গোলাপগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের সাবেক প্রেসিডেন্ট মকন মিয়া, গোলাপগন্জ হেল্পিং  হ্যান্ডস এর সভাপতি তমিজুর রহমান রঞ্জু, ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশ সেন্টারের সাবেক জেনারেল সেক্রেটারি  মুজিবুর রহমান. সাংবাদিক মোহাম্মদ আবুল মুনিম জাহেদী ক্যারল  (গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন কমিটি) সাবেক কাউন্সিলর হারুন মিয়া (গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন কমিটি)

তাজ উদ্দিন টুনু (গোলাপগঞ্জ সাবেক ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়). গোলাপগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের যুগ্ন সম্পাদক আব্দুল বাসির বিশিষ্ট ব্যবসায়ীর ও কমিনিটি নেতা তারেক আহমেদ, কমিনিটি নেতা রাজনীতিবিদ আমিনুল হক জিলু, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী আব্দুল আজিজ.  বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশন ইউ কে’র প্রেসিডেন্ট আতাউর রহমান, ফখরুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান, বিশিষ্ট ক্রীড়া মুদি ও আব্দুল্লাহ ব্যাডমিন্টন প্রোমোশনের আব্দুল্লাহ মহিম, তাকওয়া ব্যাডমিন্টন ক্লাবের সেক্রেটারি ফারুক ফুহাদ চৌধুরী, নূরুল ইসলাম,  ফজলুল হক, চান মিয়া, আবু তাহের, হেলাল উদ্দিন, বেলাল উদ্দিন, জামাল উদ্দিন, আলতা মিয়া, মকলু মিয়া প্রমুখ.

গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টকে  সফল করার জন্য স্পনসর করে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন রাইট লেন প্রপার্টির ডাইরেক্টর এনং লন্ডন তাকওয়া ব্যাডমিন্টন ক্লাবের সেক্রেটারি ফারুক ফুহাদ চৌধুরী, মুকিতুর রহমান (তারকা গিল),  মকলু  মিয়া (ডায়মন্ড ফ্যাশনস), তারিক আহমেদ (অর্কিড মানি ট্রান্সফার),  সাইফুল আলম (প্রাপুল ম্যাংগো রেস্টুরেন্ট), আব্দুস সামাদ (ভ্যান্তাজ এক্সিডেন্ট), আহসানুল হক (শাহিন রেস্টুরেন্ট), শামসুদ্দিন খান (দাওয়াত রেস্টুরেন্ট), আবু তাহের  (মাহী এন্ড কো: অ্যাকাউন্ট্যান্ট), মফিজুর রহমান (টু  স্পাইস টেকওয়ে), সাবেক কাউন্সিলর হারুন মিয়া (শেডওয়েল গ্রোসারি ), কাশেম ও বাশার (আল মদিনা বুচার ), তারেক আহমেদ (ক্যাফে মসলা রেস্তোরাঁ), গোলাপগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের সাবেক সভাপতি ফজলুল হক (জি বি লিংক এস্টেট এজেন্ট), মুহিব  উদ্দিন (লন্ডন মাছ বাজার ও বন্দর বাজার), বেলাল উদ্দিন (লন্ডন মাস্ক ), ফারুক মিয়া (কুশিয়ারা ক্যাশ এন্ড ক্যারি), মুসলেহ উদ্দিন ( ফেইট বিজনেস) ,  নানু মিয়া ( ক্রাউন কিচেন এবং হান্না )

এই খেলাকে সুন্দর ও সফল করার জন্য অন্যতম ভূমিকা রাখায়  আবুল কালাম আজাদ ও সরওয়ার হোসাইনকে বিশেষ সম্মামনা দেয়া হয়. এছাড়াও নব্বই দশকের সিলেট জেলার ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ান, গোলাপগঞ্জের কৃতি সন্তান সিদ্দিকুর কে সম্মাননা দেয়া হয়. দুই লেভেলের এই খেলায় বিগিনার গ্রূপে  (সোশ্যাল লেভেলে) ফাইনাল খেলায় হাড্ডা হাড্ডি লড়াই করে রুহেল ও রাজেল জুটি মনি ও বাদশা জুটিকে পরাজিত করে বিজয় ছিনিয়ে নেয় , তৃতীয় স্থান : সাদিক ও আলমগীর এবং ৪র্থ স্থান অর্জন করেন কিবরিয়া এবং জাকারিয়া.

অ্যাডভান্স লেভেল টুর্নামেন্টে বৃটেনের অনেক ভাল মানের খেলোয়াড়দের মধ্যে প্রচন্ড প্রতিযোগিতা হয়, অবশেষে  সবুজ ও শাকিল জুটি রুহুল ও শামসুল জুটিকে পরাজিত করে গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০১৮ এর চ্যাম্পিয়ান শিরোপা অর্জন করেন, তৃতীয় ও চতুর্থ  স্থান অর্জন করেন যথাক্রমে  লুৎফুর  ও হাসনু জুটি এবং দেলোয়ার এবং আব্দুল আজিজ জুটি. বিজয়ীদের হাতে ট্রপি ও নগদ অর্থ তুলে দেন অথিতিবৃন্দ এবং খেলার আয়োজকরা.

গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০১৮ পরিচালনা কমিটিতে ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর ও প্রবীণ ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় হারুন মিয়া, মোহাম্মদ আব্দুল মুনিম জাহেদী ক্যারল, আবুল কালাম আজাদ, আমিনুর রহমান, সুলতান হায়দার (জসিম), শফিক  আবদুল্লাহ, সুলতান এমদাদ, শাকিল রহমান, সরওয়ার  হোসেন, লুৎফুর রহমান, সৈয়দ মোহাম্মদ রেজা, সিদ্দিকুর  রহমান, রুহুল আলম ও হিফজুর রহমান হাসনু. এই ঐতিহাসিক ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের আয়োজন এবং পৃষ্ঠপোষকতায় জড়িত সকলকে  ধন্যবাদ জানান হয় গোলাপগঞ্জ ব্যাডমিনটন কমিটির পক্ষ থেকে।

 
 
 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

 

ক্যালেন্ডার