আজকে

  • ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ২২শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং
  • ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

আলিবাবা ও একজন জ্যাক মা

Published: শনিবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ    |     Modified: শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৮ ২:৪৯ অপরাহ্ণ
 

ইউকেবিডি টাইমসডেস্কঃজ্যাক মা। তিনি এক নামেই বিশ্বজুড়ে পরিচিত। অথচ তিনি ছিলেন ইংরেজি ভাষার একজন শিক্ষক। কিন্তু ১৯৯৯ সালে যৌথভাবে আলিবাবা নামের কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করে রাতারাতি উঠে আসেন খ্যাতির শিখরে। ই-কমার্স ভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠানটি ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করে বিশ্বজুড়ে। তাই জ্যাক মা’কে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয় নি। তাকে খুঁজে নিয়েছে অনুসন্ধিৎসী মানুষ। ব্যবসায় সফলতার মাধ্যমে তিনি হয়ে উঠেছেন চীনের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। তার ইন্টারনেট ভিত্তিক কোম্পানি আলিবাবার মূল্যমান ৪২০০০ কোটি ডলার। বর্তমানে তিনি এ প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী চেয়ারম্যান। সোমবার তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, শিক্ষায় তিনি মানবতার সেবা করতে চান। তাই আলি বাবা কোম্পানি থেকে তিনি পদত্যাগের পরিকল্পনা করেছেন। এ খবর দিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস নিউজ সার্ভিস। এতে বলা হয়েছে, জ্যাক মা ১৯৯৯ সালে আলি বাবা নিয়ে যাত্রা শুরু করে এক বিপ্লব ঘটিয়ে দিয়েছেন। চীনাদের কাছে অনলাইনে পৌঁছে দিয়েছেন সব রকম পণ্য। এর ফলে তার নিট সম্পদের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪০০০ কোটি ডলারেরও বেশি। এর ফলে তিনি চীনের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিতে পরিণত হয়েছেন। তার এমন সফলতা দেখে অনেক চীনা নাগরিক তাদের বাড়িতে জ্যাক মা’র ছটি টানিয়ে রেখেছেন। তারা যেভাবে সম্পদের দেবতাকে পূজা করে ঠিক একই ভাবে জ্যাক মা’র প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন। কিন্তু এখন চীনে বাণিজ্যিক পরিবেশ তিক্ত হয়ে উঠেছে। বেইজিং ও রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানগুলো অধিক হারে হস্তক্ষেপমুলক ভূমিকা পালন করছে অন্যান্য কোম্পানির বিরুদ্ধে। তাই জ্যাক মা অবসরে যাচ্ছেন। প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং য়ের অধীনে চীনে ইন্টারনেট ভিত্তিক শিল্প বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু সরকার এসব কোম্পানির লেজুর টেনে ধরেছে। এক সাক্ষাতকারে জ্যাক মা বলেছেন, তার অবসর একটি যুগের ইতি ঘটাবে না বরং একটি নতুন যুগের সৃষ্টি করবে। তিনি বলেছেন, অবসরে গেলে তিনি অধিক পরিমাণ সময় দিতে পারবেন শিক্ষার পিছনে এবং এ বিষয়টির ওপর নিবিড় নজর রাখতে পারবেন। তাই তার ভাষায় ‘আমি শিক্ষাকে ভালবাসি’।
খবরে বলা হয়েছে, নির্বাহী চেয়ারম্যান পদ ত্যাগ করলেও জ্যাক মা আলি বাবা কোম্পানির পরিচালকদের পরিষদে থেকে যাবেন। কোম্পানির ম্যানেজমেন্টের একজন প্রদর্শক হিসেবে অব্যাহত থাকবেন। সোমবার জ্যাক মা’র বয়স হচ্ছে ৫৪ বছর। এই সোমবারই চীনে সরকারি ছুটির দিন। কারণ, এ দিনটি সেখানে শিক্ষক দিবস হিসেবে পরিচিত। এ দিনটি সেখানে ছুটি থাকে।
জ্যাক মা’র অবসরে যাওয়ার ফলে আলিবাবা কোম্পানির নির্বাহী ক্ষমতা হস্তান্তরে একটি পালাবদল ঘটবে। এর আগে তিনি এ কোম্পানির প্রধান নির্বাহী পদ ত্যাগ করেন ২০১৩ সালে। কোম্পানিতে বর্তমানে এ পদে আছেন ডানিয়েল ঝাং। তিনিই জ্যাক মা’র উত্তরসূরি হতে পারেন। কোম্পানি থেকে পদত্যাগ করলেও জ্যাক মা থাকবেন সক্রিয়। এতে তার রয়েছে শতকরা ৬.৪ ভাগ শেয়ার। এখানে উল্লেখ্য, জ্যাক মা প্রকৃতপক্ষে একজন সেলসম্যান এবং আলিবাবার ক্যারিশম্যাটিক এক নেতা। অন্য ১৭ জনকে নিয়ে তিনি ১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন আলিবাবা। ওই ১৭ জন সহযোগীর বেশির ভাগই তার ছাত্র। আর বর্তমানে আলিবাবা ই-কমার্সে রাজত্ব করছে।

 
 
 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

 

ক্যালেন্ডার