আজকে

  • ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং
  • ৪ঠা জিলহজ্জ, ১৪৩৯ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

৪ নং ওয়ার্ড :মাঠে বিএনপি,জামায়াত ও আওয়ামিলীগ প্রার্থীরা তৎপর, তরুণ প্রার্থীরা হতে পারেন কয়েস লোদীর জন্য বাধা!

Published: বুধবার, জুন ৬, ২০১৮ ৫:৪৬ অপরাহ্ণ    |     Modified: সোমবার, জুন ১১, ২০১৮ ১:০৬ অপরাহ্ণ
 

সিলেট প্রতিনিধি :সিলেট শহরের একটি গুরুত্ব পূর্ণ এলাকায় অবস্থিত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৪ নং ওয়ার্ড। বিগত ১৫ বছর ধরে এই এলাকার জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে আসছেন বর্তমান কাউন্সিলর কয়েস লুদি। তবে এই বার তার জন্য তরুণ প্রার্থীদের টপকিয়ে যাওয়াটা সহজ হবে না বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সর্বশেষ হালনাগাদকৃত তালিকানুযায়ী ৪ নং ওয়ার্ডে এই ওয়ার্ডে মোট ভোটার ৮ হাজার ৫১৮ জন। তন্মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪ হাজার ৬৬৩ জন। মহিলা ভোটার ৩ হাজার ৮৫৫ জন। বিগত সিটি নির্বাচনে এই ওয়ার্ডের ভোটার ছিলেন ৭ হাজার ৯৫৬ জন। পুরুষ ভোটার ছিলেন ৪ হাজার ৪১০ জন। আর মহিলা ভোটার ছিলেন ৩ হাজার ৫৪৬ জন। দ্বিতীয় সিটি নির্বাচনে এই ওয়ার্ডের মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ১২৯ জন
নগরীর হাউজিং এস্টেট, আম্বরখানা মনিপুরীপাড়া, দত্তপাড়া, কোনাপাড়া, মজুমদারি, হানিটোলা, আম্বরখানা, দর্শনদেউড়ী, বনশ্রী আবাসিক এলাকা নিয়ে গঠিত ৪ নম্বর ওয়ার্ড। এ ওয়ার্ডের মূল এলাকা হাউজিং এস্টেটটি পরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠে।কিন্তু দীর্ঘ ১৫ বছরে অত্র এলাকায় উন্নয়ন কার্যক্রম পরিলক্ষিত হয়নি। তাই তরুণ ভোটাররা চাইছেন পরিবর্তন এবং নতুন নেতৃত্ব
আগামী নির্বাচনে কয়েস লোদীর সাথে নির্বাচনে লড়াইয়ে মাঠে নামছেন বেশ কয়েকজন তরুণ প্রার্থী। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় যার নাম রয়েছে তিনি হচ্ছে বিএনপি নেতা ও ব্যবসায়ী সোহাদ রব চৌধুরী ও সাবেক শিবির নেতা ও তরুণ সংগঠক মেহেদী মজুমদার । প্রচারণার মাঠে থাকা অন্য প্রার্থীরা হলেন শ্রমিক লীগ নেতা শেখ তোফায়েল আহমদ সেপুল, জাবের আহমদ চৌধুরী, ছাত্রদল নেতা ওমর মাহবুব।

ওয়ার্ডে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে টানা তিনবারের নির্বাচনে বিজয়ী কয়েস লোদীর চোখ আছে মেয়র পদের দিকে।তাই ভোটাদের খুব একটা কাছে যেতে পারছেননা তিনি। এ ওয়ার্ডে প্রচারণায় সবচেয়ে এগিয়ে আছেন বিএনপি নেতা সোহাদ রব চৌধুরী আবার কিছুদিন থেকে নির্বাচিনী প্রচারণায় নেমেছেন সাবেক শিবির নেতা আমেরিকা প্রবাসী মেহেদী মুজমদার।৪নং ওয়ার্ডে জামায়াতের রয়েছে বিশাল ভোট ব্যাংক এবং ৪ নং ওয়ার্ডের ঐতিহ্যয্যবাহি মুজমদার বাড়ির রয়েছে নিজস্ব বড় অংকের ভোট, এছাড়া বিগত দিনে জোট সরকার আমলের শেষের দিকে কাউন্সিলর কয়েস লোদী অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছাত্রদলের হাত থেকে ৪নং ওয়ার্ড এর নিয়ন্ত্রণ চলে যায় শিবিরের হাতে এবং বিপুল সংখক তরুণ বাসিন্দা সম্পৃক্ত হয়ে পরে জামাত শিবিরের রাজনীতিতে, এবং বর্তমান সময়ে এসে তারা সকলেই প্রাপ্ত বয়স্ক ভোটার যা মেহেদী মুজমদার কে এগিয়ে রাখতে পারে ভোটার রাজনীতিতে ।
আগের সিটি নির্বাচনে এ ওয়ার্ড থেকে মাত্র ২ জন প্রার্থী অংশ নিয়েছিলেন, লড়াইও তেমন জমেনি। কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে সহজেই বেরিয়ে এসেছিলেন কয়েস লোদী। তবে এবার বোধহয় লড়াই এতটা সহজ হবে না। নতুন নতুন প্রাথী আর জোর প্রচারণা বলছে, এবারে নির্বাচনে চ্যালেঞ্জের সামনেই রয়েছেন কয়েস লোদী।

 
 
 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

 

ক্যালেন্ডার

    আগষ্ট ২০১৮
    রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
    « জুলাই    
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০৩১