আজকে

  • ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং
  • ৮ই সফর, ১৪৪০ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটিতে কর্মসংস্থান হবে ১৪ হাজার জনের

Published: শুক্রবার, মার্চ ২, ২০১৮ ২:০৩ অপরাহ্ণ    |     Modified: শনিবার, মার্চ ৩, ২০১৮ ১:৪৪ পূর্বাহ্ণ
 

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:

রাজশাহীতে নতুন দুয়ার খুলছে কর্মসংস্থানের। যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালির আদলে রাজশাহীতে প্রায় ৩২ একর জায়গায় স্থাপন করা হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটি’। আর এটিই দেশের প্রথম সিলিকন সিটি। প্রত্যাশিত বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটির অপেক্ষায় এখন রাজশাহীর তারুণ্য।

২০২১ সালের মধ্যে বিশাল কর্মসংস্থানের মধ্য দিয়ে খুলে যাবে হাজারো প্রযুক্তিনির্ভর তারুণ্যের স্বপ্নের দুয়ার। ৩১ দশমিক ৬৩ একর জায়গায় বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটি নির্মাণে ব্যয় হবে ২৮১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে বিশ্বব্যাংক দেবে ৪৩ কোটি ১৯ লাখ টাকা। নির্মাণ শেষে এখানে ১৪ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে।

আশা কর হচ্ছে, রাজশাহীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বড় ধরনের অবদান রাখবে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সিলিকন সিটি। তাই এখন থেকেই স্বপ্ন দেখছেন রাজশাহীর তারুণ্য। সংশ্লিষ্টরা ভাবছেন, এ সিলিকন সিটির মাধ্যমে খুলে যেতে পারে বড় ধরনের উন্নয়নের নতুন দিগন্ত।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুল ওয়াদুদ জানান, সিলিকন সিটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে এ অঞ্চলের অর্থনীতির চাকা চাঙা হবে। এতে বিপুল সংখ্যক তরুণ উদ্যোক্তা সৃষ্টি হবে। সেই সঙ্গে বাড়বে এ খাতে কর্মসংস্থান।

রাজশাহী সদর আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক সিলিকন সিটির নির্মাণের মধ্য দিয়ে আমাদের স্বপ্ন সফল হতে চলেছে। এই সিলিকন সিটির কাজ শেষ হলে ১৪ হাজার তরুণ প্রজন্মের কর্মসংস্থান হবে। এর ফলে রাজশাহীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বড় ধরনের অবদান রাখবে।

ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বহুল প্রত্যাশিত এ সিলিকন সিটির নির্মাণ কাজের প্রাথমিক পর্ব। গেট ও সীমানা প্রাচীরের ভিত্তিপ্রস্তর উন্মোচনের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটির অবকাঠামো নির্মাণের প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে গত বছর। ২০২১ সাল নাগাদ রাজশাহীকে সারা বিশ্বই চিনবে এই হাই-টেক পার্কের মধ্য দিয়ে।

কালের কন্ঠ

 
 
 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

 

ক্যালেন্ডার