আজকে

  • ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং
  • ৮ই সফর, ১৪৪০ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

পাকিস্তানের সরকারি ভাষা হিসেবে চীনা ভাষাকে স্বীকৃতির প্রস্তাব

Published: শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ ৭:২৪ পূর্বাহ্ণ    |     Modified: শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ ৭:২৪ পূর্বাহ্ণ
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

চীনা ভাষা মান্দারিনকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি দেয়ার প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা চলছে পাকিস্তানের উচ্চপর্যায়ে। পাকিস্তানের সঙ্গে চীনের সম্পর্ক উন্নয়নের অংশ হিসেবে এ স্বীকৃতি খুবই কার্যকর হবে বলে মনে করছেন দেশটির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।

পাকিস্তানে বর্তমানে চীনের অসংখ্য প্রকল্প চলমান রয়েছে। চীনের অর্থনৈতিক সংযোগ পরিকল্পনার গুরুত্বপূর্ণ অংশ গেছে পাকিস্তানের ওপর দিয়ে। এ অবস্থায় পাকিস্তান মান্দারিনকে সরকারি ভাষা হিসেবে কার্যকর করলে চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক কোরিডোর (সিপেক) প্রকল্পে দু’দেশের সংযোগ আরও সহজ হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বর্তমানে পাকিস্তানের প্রচুর শিক্ষার্থী চীনা ভাষা শিখছে। চীনা ভাষা শিখলেপাকিস্তানের সাধারণ মানুষের সঙ্গে চীনা কর্মকর্তাদের কথাবার্তায় সুবিধা হবে। এতে ভালো চাকরিও পাওয়া যাবে বলে ধারণা রয়েছে সাধারণ মানুষের।

সম্প্রতি পাকিস্তানে চীনা বিনিয়োগ ৫০ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। পাকিস্তানে চীনা বিনিয়োগ আরও বাড়বে। এসব অর্থনৈতিক কার্যক্রমকে ঘিরে চীনাদের সঙ্গে পাকিস্তানের মানুষের যোগাযোগ, আদান-প্রদানও বাড়ছে। এই কানেকটিভিটির কারণে মান্দারিনকে পাকিস্তানের অফিসিয়াল ভাষা করা হলে তা আর্থিকভাবে দেশটির জন্য লাভবান হওয়া সহজ হবে।

কালের কন্ঠ

 
 
 

এই বিভাগের আরও সংবাদ

 

ক্যালেন্ডার